?>

মঙ্গলবার   ১১ মে ২০২১ || বৈশাখ ২৮ ১৪২৮ || ২৮ রমজান ১৪৪২

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

সংবাদ সম্মেলনে টিকা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

২১:২৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১

আপডেট: ২১:২৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১

১৭২

সংবাদ সম্মেলনে টিকা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর

সংবাদ সম্মেলনে টিকা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর
সংবাদ সম্মেলনে টিকা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর

করোনা শনাক্ত হলে নেগেটিভ হওয়ার ৮ সপ্তাহ থেকে ১২ সপ্তাহের মধ্যে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা নেওয়া যাবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এছাড়া দেশীয়ভাবে কোনো প্রতিষ্ঠান যদি টিকা প্রস্তুত করতে পারে, সে বিষয়েও সরকার ভাবছে। বুধবার (১৪ এপ্রিল) এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

চলাচল ও জীবন যাপনে সর্বাত্মক বিধিনিষেধে টিকার ডোজ, রোজায় টিকা এবং করোনামুক্ত হওয়ার কত দিনের মাথায় টিকা নেওয়া যাবে এসবসহ টিকা প্রাপ্তি এবং হাসপাতাল পরিস্থিতি নিয়ে—এ ধরনের নানা প্রশ্নের উত্তর দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

চলাচল ও জীবন যাপনে সর্বাত্মক বিধিনিষেধে টিকা কার্যক্রম-
গত ৮ এপ্রিল থেকে দেশে করোনার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে, সেইসঙ্গে চলছে প্রথম ডোজও। এরমধ্যে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক নিষেধাজ্ঞা শুরু হয়েছে। তবে এর মধ্যেই টিকা কার্যক্রম চলবে বলে সংবাদ সম্মেলনে নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা।

তিনি বলেছেন, 'সবাই টিকা পাবে, এ বিসয়ে কোনো দ্বিধা নেই,টিকা কার্যক্রম চলবে। টিকা কার্ড সঙ্গে থাকলে টিকা নিতে যাওয়া যাবে।'

চলমান বিধিনিষেধে যারা টিকাকেন্দ্র থেকে দূরে অন্য এলাকায় থাকছেন, তাদের দ্বিতীয় ডোজ পাওয়া বিষয়ে মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন,'৮ সপ্তাহ থেকে ১২ সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিতে হবে। ৮ সপ্তাহ যাদের হয়েছে, তাদেরও শঙ্কিত বা উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই। ১২ সপ্তাহের মধ্যে নিলেই হবে। যদি নিষেধাজ্ঞা দীর্ঘায়িত হয় তখন টিকা কীভাবে দেওয়া হবে, সে ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ বিবেচনা করবে।'

রোজায় টিকা-
রোজায় টিকা নেওয়ার বিষয়ে জানান মীরজাদী। তিনি বলেন, রোজায় টিকা নেওয়া যাবে কি না, এ বিষয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কাছে পরামর্শ চাওয়া হয়েছিল। ফাউন্ডেশন অনেক আগেই জানিয়ে দিয়েছে, রোজার মধ্যে টিকা নিতে কোনো বাধা নেই। সৌদি আরবসহ বিভিন্ন মুসলিম দেশেও রোজায় টিকা কার্যক্রম চলছে।

করোনামুক্ত হওয়ার কতোদিন পরে টিকা নেওয়া যাবে?-
করোনামুক্ত হলে কতো দিন পরে টিকা নেওয়া যাবে এ বিষয়েও কথা বলেছেন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক। তিনি বলেন, এই বিষয়টি নিয়ে অনেকেই বিভ্রান্ত। বলেন, করোনা নেগেটিভ হওয়ার এক মাস পরও টিকা নেওয়া যাবে। প্রথম ও দ্বিতীয় দুই ডোজের ক্ষেত্রেই এই সময় প্রযোজ্য।

টিকা প্রাপ্তির সম্ভাবনা-
মীরজাদী সেব্রিনা জানান, দেশের সবার টিকা পাওয়া নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে। টিকার বৈশ্বিক জোট কোভ্যাক্সের সঙ্গে ২০ শতাংশ মানুষের জন্য টিকা পাওয়ার একটি চুক্তি রয়েছে। যেকোনো সময়ে তা আসবে। রাজস্ব খাত থেকে যে তিন কোটি ডোজ কেনা হয়েছে, তা পর্যায়ক্রমে আসছে। 

এ ছাড়া বিশ্বব্যাংকের একটি প্রকল্পে ৫০০ মিলিয়ন ডলার রাখা হয়েছে টিকা কার্যক্রমের জন্য। এডিবির সঙ্গেও আরেকটি ৯৪০ মিলিয়ন ডলারের কাজ হচ্ছে। সরকার শুধু অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ওপর নির্ভর না করে অন্যান্য দেশ যারা টিকা বানাচ্ছে, সেখান থেকে আনা যায় কি না, সেই চেষ্টাও করছে। এ ছাড়া দেশীয়ভাবে কোনো প্রতিষ্ঠান যদি টিকা প্রস্তুত করতে পারে, সে বিষয়েও ভাবা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

হাসপাতাল পরিস্থিতি-
করোনার চিকিৎসায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আরও কিছু তথ্য দিয়েছে। করোনার জন্য সারা দেশে শয্যা আছে ৭ হাজার ৪২০টি, আইসিইউ ৪১১টি, ভেন্টিলেটর ৪৪২টি, অক্সিজেন সিলিন্ডার আছে ১৬ হাজার ৪৯৮টি, হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলা ৬৩৬টি এবং অক্সিজেন কনসেনট্রেটর আছে ৪৬৭টি। 

করোনা ছাড়াও অন্যান্য নিয়মিত টিকাদান কর্মসূচি এখনো চলছে। করোনা পরীক্ষা নিয়ে সমস্যা হলে অ্যান্টিজেন টেস্ট করানোর পরামর্শও দেওয়া হয় সংবাদ সম্মেলনে।
 

DBBL Nexas Card
TELETALK
স্পটলাইট বিভাগের সর্বাধিক পঠিত