বৃহস্পতিবার   ২৫ জুলাই ২০২৪ || ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ || ১৬ মুহররম ১৪৪৬

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

শুধু আফগান স্পিনারদের নিয়ে ভাবতে চান না পোথাস 

স্পোর্টস ডেস্ক

২২:০৪, ১ জুন ২০২৩

৩২৮

শুধু আফগান স্পিনারদের নিয়ে ভাবতে চান না পোথাস 

আফগানিস্তান স্পিনে কতোটা ভয়ঙ্কর তা জানে পুরো ক্রিকেট বিশ্ব। রশিদ খান, মুজিব মাথা ব্যথার কারণ হতে পারে বাংলাদেশের জন্য। তবে শুধুমাত্র আফগানিস্তানের স্পিনারদের উপর মনোযোগী না হতে সতর্ক করেছেন বাংলাদেশের সহকারী কোচ নিক পোথাস। স্পিনারদের মোকাবেলার আগে প্রতিপক্ষের পেসারদের বিপক্ষে ভাল খেলতে হবে বলে মনে করেন সাবেক এই প্রোটিয়া ক্রিকেটার।

বৃহস্পতিবার (১ জুন) গণমাধ্যমকে পোথাস বলেন, ‘তাদের (আফগানিস্তান) উঁচু মানের স্পিন আক্রমণ আছে, এজন্য এই চ্যালেঞ্জটি রোমাঞ্চকর। সমস্যার মধ্যে রোমাঞ্চের সমাধান আছে। বলা যায়, স্পিন খেলার আগে আমাদের সিম খেলতে হবে। আমরা স্পিনে সব মনোযোগ দিতে পারি না কারণ বুঝে উঠার আগেই পেসারদের বিপক্ষে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেললাম। আমরা আমাদের মত করে বিচার বিশ্লেষণ করবো। বিভিন্ন সময় দেখা যায়, টেস্ট ম্যাচ আসলে দাবা খেলার মত। তাদের যেন ভালভাবে মোকাবেলা করতে পারি তা আমাদের নিশ্চিত করতে হবে। এটি রোমাঞ্চকর।’ 

দুই ভাগে সিরিজ খেলতে আগামী ১০ জুন বাংলাদেশে আসবে আফগানিস্তান। একমাত্র টেস্ট খেলার পর সাদা বলের সিরিজ খেলতে ভারত সফর করবে আফগানরা। পরবর্তীতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে এবং দু’টি টি-টোয়েন্টি খেলতে বাংলাদেশে ফিরবে আফগানিস্তান। পোথাস জানান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ‘এ’ দলের বিপক্ষে অনানুষ্ঠানিক টেস্ট সিরিজে ব্যাট হাতে পারফর্ম করতে না পারা ব্যাটারদের নিয়ে চিন্তিত নন। ব্যাটারদের সমস্যা সমাধানের উপর জোর দিয়েছেন তিনি। ফুরফুরা মেজাজে থাকা পোথাস বলেন, ‘আমার কাছে জাদুর কাঠি আছে। আমি শুধু জাদুর কাঠি ঘুড়াবো। খুব দ্রুত ব্যাটার তৈরি করবো...আমি মজা করছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এসব বিষয়ে সময় লাগে। আমি একটি নতুন সংস্কৃতিতে প্রবেশ করেই সেটির বিভিন্ন বিষয়ে পরিবর্তন আনতে পারব না। আমাকে কিছু দিন  ব্যাটারদের দেখতে হবে। তারা কিভাবে নিজেদের কাজ করে সে বিষয়ে আমাদের বিশ্লেষণ করতে হবে। প্রতিটি দেশ বিভিন্ন রকম পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যায়। আপনাদের মতে, যেভাবে টেস্টে খেলতে চান ঠিক সেভাবে খেলতে পারছেন না। সেই সময় আবারও আসবে।’

Kabir Steel Re-Rolling Mills (KSRM)
Rocket New Cash Out
Rocket New Cash Out
bKash
Community Bank