?>

বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১ || বৈশাখ ২ ১৪২৮ || ০১ রমজান ১৪৪২

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

চ্যাম্পিয়ন্স লীগ: ঘরের মাঠে ম্যানসিটি-রিয়ালের জয়

স্পোর্টস ডেস্ক

০৮:১৬, ৭ এপ্রিল ২০২১

আপডেট: ০৮:১৯, ৭ এপ্রিল ২০২১

৬৫

চ্যাম্পিয়ন্স লীগ: ঘরের মাঠে ম্যানসিটি-রিয়ালের জয়

চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সাত ম্যাচ পর গোলের দেখা পেলেননা আরলিং হালান্ড৷ ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে জয়ের দেখাও পেলোনা বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। অন্যদিকে রামোস-ভারানে-কারবাহালহীন রক্ষণভাগ ছাড়াই লিভারপুলের বিপক্ষে জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। 

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) রাতে ঘরের মাঠে বরুসিয়ার ডর্টমুন্ডকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। প্রথমার্ধে কেভিন ডি ব্রুইনের গোলে এগিয়ে সিরি যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে বরুসিয়াকে সমতায় ফেরান মার্কো রয়েস। আর শেষ মিনিটের গোলে সিটির জয় নিশ্চিত করেন ফিল ফোডেন। 

সপ্তম মিনিটে প্রথম সুযোগ পায় সফরকারীরা। বেলিংহামের শটটি ঝাপিয়ে পড়ে ঠেকান সিটি গোলরক্ষক এডারসন। 

১৯ মিনিটে লক্ষ্যে প্রথম শট নিয়েই গোলের দেখা পায় সিটি। বাঁ পাশ থেকে ফিল ফোডেন ক্রস করেন রিয়াদ মাহারেজের কাছে। এই উইঙ্গার ডি ব্রুইনার কাছে বল বাড়ালে ডান পায়ের শটে ঠিকানা খুঁজে নেন সিটি অধিনায়ক। 

৩০ মিনিটে ডি বক্সে রদ্রি পড়ে গেলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু ভিএআর দেখে পরে ফাউলই হয়নি বলে জানান। তার কিছুক্ষণ পরই বল জালে জড়ান বেলিংহাম। কিন্তু ডি বক্সের মুখে এডারসনকে ফাউল করায়   গোল দেননি রেফারি। 

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে দারুণ এক সুযোগ পান হালান্ড। কিন্তু এডারসনকে একা পেয়েও বল জালে জড়াতে পারেননি এই নরওয়েজিয়ান। 

৮৪ মিনিটে মূল্যবান অ্যাওয়ে গোলটি পায় বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। হালান্ডের পাস ধরে ডান কোনা দিয়ে বলটি জালে জড়া সফরকারীদের অধিনায়ক রয়েস। 

তবে তাদের আনন্দ দীর্ঘায়িত হতে দেয়নি সিটি। ডি ব্রুইনে লম্বা পাস রিসিভ করে ফোডেনকে দেন ইলকায় গুন্দুগান। হালকা শটে ঠিকানা খুঁজে নেন এই ইংলিশ মিডফিল্ডার। 

ম্যাচ জিতলেও খুব বেশি স্বস্তিতে নেই সিটি। কারণ পরের লেগে যে ১-০ গোলে বরুসিয়া জিতেই যে বাদ পড়তে হবে। 

অন্য ম্যাচে তিন বছর আগের ফাইনালের প্রতিশোধ নিতে পারেনি লিভারপুল। বড় ব্যবধানে জিতে সেমির  পথে অনেকটা এগিয়ে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ। অথচ রক্ষণভাগের তিন সেননী ছাড়ে মাঠে নামে জিদানের শিষ্যরা৷ 

ঘরের মাঠে লিভারপুলকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ৷ প্রথমার্ধে ভিনিসিয়াস জুনিয়র ও মার্কে অ্যাসেনসিওর গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা৷ শেষ দিকে সালাহর গোলে লিভারপুল ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করলেও   ভিনিয়াসের দ্বিতীয় গোলে আবার পিছিয়ে যায়। 

২৭ মিনিটে জালে বল জড়ায় রিয়াল। টনি ক্রুসের বাড়ানো লম্বা ক্রস বুকে রিসিভ করে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঠিকানা খুঁজে নেন ভিনিসিয়াস। ৩৬ মিনিটে রক্ষণের ভুলে দ্বিতীয় গোল হজম করে সফরকারীরা। টনি ক্রসের বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের ডি বক্সে বল দেন ট্রেন্ড আলেক্সান্ডার আর্নল্ড। সেখান থেকে বল পেয়ে জালে জড়ান অ্যাসেনসিও। 

৫১ মিনিটে ব্যবধান কমায় লিভারপুল। দিয়েগো জোতার শট মডরিচের পায়ে লেগে যায় সালাহর কাছে।  বাঁ পায়ের শটে বল জালে জড়ান এই মিশরি স্ট্রাইকার। 

৬৫ মিনিটেই ব্যবধান ৩-১ করে রিয়াল।  লুকা মডরিচের পাস ধরে প্রেসিং শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ভিনিসিয়াস৷

DBBL Nexas Card
TELETALK