শুক্রবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ || ২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯ || ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে জিতলো নেদারল্যান্ডস

স্পোর্টস ডেস্ক

১০:৪৯, ২২ নভেম্বর ২০২২

৭৩

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে জিতলো নেদারল্যান্ডস

হাড্ডাহাড্ডি শেষেও সেনেগালের বিপক্ষে  জয় দিয়ে  কাতার বিশ্বকাপ মিশন শুরু করলো  নেদারল্যান্ডস। ৮৩ মিনিট পর্যন্ত  লড়াই করে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচ গোলশূন্য রেখেছিলো সেনেগাল। কিন্তু ৮৪ ও ইনজুরি টাইমের(৯০+৯)নবম মিনিটে দুই গোল করে ২২তম ফিফা বিশ^কাপে জয় দিয়েই  শুরু করতে সক্ষম হয় ডাচরা।

আজ গ্রুপ-এ’র ম্যাচে নেদারল্যান্ডস ২-০ গোলে হারিয়েছে সেনেগালকে। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেও শেষ মুর্হূতে দুই গোল হজম করে হারের হতাশায় ডুবতে হয় আফ্রিকান সিংহদের।

দোহার আল-থুমামা স্টেডিয়ামে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে চমক দেখানোর লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামে ২০০২ আসর চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে ১-০ গোলে হারানো সেনেগাল। সেনেগালের জন্য বড় দু:সংবাদ ছিল বিশ্বকাপের আগে দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় সাদিও মানেকে হারানো।  কিন্তু ম্যাচের প্রথমার্ধে নেদারল্যান্ডসের সাথে পাল্লা দিয়ে লড়াই করেছে সেনেগাল।

বরং ম্যাচের প্রথম ১০ মিনিটে দু’টি আক্রমন করে সেনেগাল। ভাগ্য সহায় না থাকায় গোলের দেখা পায়নি তারা। এরপর সময় নিয়ে মধ্যমাঠের দখল নিয়ে আক্রমন শানায় নেদারল্যান্ডস। কিন্তু সেনেগালের ডিফেন্সে ভাঙ্গন ধরাতে পারেনি তারা। তাদেরও দু’টি ভালো আক্রমন ব্যর্থ করে দেয় সেনেগালিজরা।

এরমধ্যে ১৯ মিনিটে গোলের সবচেয়ে ভালো সুযোগ পেয়েছিলেন নেদারল্যান্ডসের মিডফিল্ডার ফ্রেংকি ডি জং। সেনেগালের গোলরক্ষককে একা পেয়েও জং শট নিতে দেরি করায় নিশ্চিত গোল বঞ্চিত হয় নেদারল্যান্ডস।  

শেষ পর্যন্ত প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কোন দলই। বল দখলে নেদারল্যান্ডস কিছুটা এগিয়ে থাকলেও পরিসংখ্যান বলছে, তুলনামূলক ভালো খেলেছে আফ্রিকান দলটি। এই অর্ধে ৭টি শট নেয় সেনেগাল। টার্গেটে ছিলো ২টি। আর ৫টি শট নেয় নেদারল্যান্ডস। টার্গেটে ছিলো না ১টিও।

প্রথমার্ধের মত দ্বিতীয়ার্ধেরও শুরু থেকে আক্রমনাত্মক ফুটবল খেলে দই্ ুদলই।  দ্বিতীয়ার্ধে প্রথম ২০ মিনিটে দু’টি করে শট নেয় দু’দল। এরমধ্যে সেনেগালের শট দুটি হয় লক্ষ্যভ্রষ্ট।

গোল না হওয়ায় ড্র’র দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলো ম্যাচটি। কিন্তু ৮৪ মিনিটে কাঙ্খিত গোল পেয়ে যায় নেদারল্যান্ডস। ১৯ মিনিটে সহজ গোল মিস করা ফ্রেংকির  ক্রসে বক্সের ভেতর থেকে স্ট্রাইকার কোডি গাকপো হেডের মাধ্যমে গোল করলে  ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ডাচরা।

এমন অবস্থায় শেষ সময়ে গোল হজম করে ম্যাচে ফিরতে মরিয়া হয়ে উঠে সেনেগাল। নির্ধারিত সময় শেষ হবার পরও ইনজুরি সময়ে ১১ মিনিট খেলা হয়। নবম মিনিটে মিডফিল্ডার ডেভি ক্লাসেন দলের পক্ষে দ্বিতীয় গোল করলে ২-০ ব্যবধানের  জয় পায় নেদারল্যান্ডস।

আগামী ২৫ নভেম্বর আল-থুমামা স্টেডিয়ামে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিকব কাতারের মুখোমুখি হবে সেনেগাল। একই দিন খালিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ইকুয়েডরের বিপক্ষে খেলবে নেদারল্যান্ডস।

Kabir Steel Re-Rolling Mills (KSRM)
Rocket New Cash Out
Rocket New Cash Out
BKash My Offer