রোববার   ০১ আগস্ট ২০২১ || ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮ || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

শোকাবহ আগস্ট

প্রাণের কোণে বেজে ওঠে এ কোন বেদনার সুর!

বিশেষ সংবাদদাতা

০০:৪৯, ১ আগস্ট ২০২১

৮১

শোকাবহ আগস্ট

প্রাণের কোণে বেজে ওঠে এ কোন বেদনার সুর!

প্রাণের কোণে বেজে ওঠে এ কোন বেদনার সুর!
আগস্ট এলো বুঝি!
জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু তোমারে হারায়ে খুঁজি।

মাসটি যথন ঘনিয়ে আসে তখন থেকেই একটি বেদনার সুর মনে বাজতে থাকে। একে কেবল বেদনা বললে ভুল হবে, এ এমন এক ঘটনা যা জাতিকে হেয় করেছে। এতগুলো বছর পর গোটা জাতিকে এখন এক আত্মগ্লানিতে ভোগায়। সেটি ১৯৭৫ সালের আগস্ট মাস। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে মাসের মধ্যভাগে। কিন্ত সাড়ে চার দশক পার করেও আজ আগস্ট এলেই এক রক্তাক্ত শোকগাঁথার মাসই মনে হয়। ঘটনার মাত্র চারটি বছর আগে যে জাতি একটি দেশকে স্রেফ বুকের রক্তে স্বাধীন করলো, যে জাতি হারতে জানেনা বলে বিশ্বের কাছে মাথা উঁচু করলো, এক মুজিবের ডাকে ঘরে ঘরে লক্ষ মুজিব তাদের সংগ্রামী চেতনা নিয়ে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়লো, সেই জাতিরই কয়েক কুলাঙ্গার সন্তান ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে এমন রক্ত ঝরালো, যে রক্ত কবির ভাষায় গোটা দেশ বেয়ে নেমে গেছে বঙ্গোপসাগরে। কেবল বঙ্গবন্ধুকেই নয়, ঘাতকেরা সেদিন রেহাই দেয়নি তার পরিবারের একটি সদস্যকেও। কেবল দেশের বাইরে থাকার কারণে সেদিন বেঁচে গিয়েছিলেন জাতির জনকের দুই মেয়ে শেখ হাসিনা আর শেখ রেহানা। জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা এখন দেশের নেত্বৃত্ব দিচ্ছেন। জাতির কাছের আস্থার প্রতীক হয়ে উঠেছেন। অনেক অর্জনের পথে নিয়ে গেছেন দেশকে। তবে কোনো অর্জন দিয়েই ঢাকার নয়, সেই শোক। 

তাই শোকাবহ এই মাসের শুরুতে জাতির জনককে স্মরণ করছে জাতি। মাসজুড়ে সরকার ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পালন করা হবে নানা কর্মসূচি। শোকাবহ আগস্টে সমগ্র জাতির সঙ্গে একাত্ম হয়ে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম ও বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক- রাজনৈতিক সংগঠনসমূহ যথাযোগ্য মর্যাদা, শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও ভাবগম্ভীর আর বেদনাবিধূর পরিবেশে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালন করবে, এমনটা জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা বাসস।

তবে, এবার জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি সীমিত পরিসরে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে  আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

ওবায়দুল কাদের জানান, বাঙালি জাতির ইতিহাসে সবচেয়ে শোকাবহ, মর্মান্তিক হত্যার স্মৃতিবিজড়িত আগস্ট মাস আমাদের দুয়ারে সমাগত। প্রতিবছর আগস্ট মাসে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যায়ে  ব্যাপক কর্মসূচি পালন করা হয় কিন্তু এবারও করোনার ভয়াবহতায় লকডাউনের কারণে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশে আগস্টের কর্মসূচি সীমিত পরিসরে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শোকের মাসের প্রথম দিনে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন কৃষক লীগের উদ্যোগে রক্ত ও প্লাজমা দান কর্মসূচি পালন করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এই কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন। এছাড়া আওয়ামী লীগের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ৫ আগস্ট শেখ কামালের জন্মদিন উপলক্ষে সকাল সাড়ে আটটায় আবাহনী ক্লাব প্রাঙ্গণে তার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন। সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদন। ৮ আগস্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে সকাল ৯ টায় বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদন।

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৮টায় ঐতিহাসিক ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। সকাল সোয়া ৯টায় বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদন। সকাল ১১ টায় টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিতে আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দলের শ্রদ্ধা নিবেদন। এছাড়াও ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দেশের সকল মসজিদ, মন্দির, গির্জা ও প্যাগোডায় বিশেষ দোয়া ও প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। ১৬ আগস্ট বিকেল সাড়ে তিনটায় জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা।

১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলা দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা। ২১ আগস্ট নারকীয় গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে সকাল ৯ টায় ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে শ্রদ্ধা নিবেদন। বিকেল সাড়ে তিনটায় ঘরোয়াভাবে আলোচনা সভা।

২৭ আগস্ট জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সকাল ৯টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদ প্রাঙ্গণে কবির সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। এছাড়াও আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোর উদ্যোগে পৃথক কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

Dutch-Bangla Bank
TELETALK
খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত