রোববার   ১৬ জুন ২০২৪ || ৩ আষাঢ় ১৪৩১ || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

গরমে শরীর ঠান্ডা করে যেসব খাবার

লাইফস্টাইল ডেস্ক

২০:১১, ২০ এপ্রিল ২০২৪

৩০৮

গরমে শরীর ঠান্ডা করে যেসব খাবার

বৈশাখের শুরুতেই তীব্র গরমে বিপর্যস্ত জনজীবন। গরমের কারণে সারাদেশে হিট অ্যালার্ট জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। প্রচণ্ড গরমে মাত্রাতিরিক্ত ঘাম বের হওয়ায় পানিশূন্যতার ঝুঁকিতে পড়ে শরীর। এ অবস্থায় নিজেকে সুস্থ রাখতে প্রচুর পরিমাণ পানি পান করতে হবে।

শুধু পানি পান নয়, গরমের এ সময় এমন সব খাবার খাওয়া উচিত যেগুলো শরীর ঠান্ডা রাখতে এবং শরীরে পানির যোগান দিতে সাহায্য করে।

চলুন জেনে নেই  কোন খাবারগুলো শরীর ভেতর থেকে ঠান্ডা রাখে

লাউ

গ্রীষ্মকালে লাউ অনেক সহজলভ্য একটি সবজি। এটি সহজে ওজন কমায় ও হজমে সহায়তা করে। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিয়মিত লাউ তরকারি খেতে পারেন। লাউ সেদ্ধ করে দইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। রায়তার মতো খেতে পারেন। এ ছাড়া খেতে পারেন লাউয়ের স্যুপ।

পুদিনা পাতা

পুদিনা চাটনি করে পরোটার সঙ্গে খান। অথবা কোন ফলের শরবত বানালে তাতে পুদিনা পাতা দিতে পারেন। আবার শুধু পানিতে কয়েকটা পুদিনা পাতা আর লেবু মিশিয়ে ডিটক্স ওয়াটার বানাতে পারেন। হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে এই পানীয়।

লেবুর শরবত

রোদ থেকে ফিরে কিছুক্ষণ বসে শরীরের তাপমাত্রা একটু মানিয়ে নেওয়ার সময় নিন। তার পরে লেবু আর লবণের শরবত খেতে পারেন। এতে করে গরম থেকে ফেরার পর অস্থিরতা কমবে এবং প্রাণ জুড়াবে। হজমশক্তির পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়াবে এই শরবত।

শসা

যে কোন মৌসুমে শসা খাওয়া স্বাস্থ্যকর। কিন্তু বিশেষ করে গরমকালে শসার সালাদ অবশ্যই খাওয়া উচিত। এতে শরীর ঠান্ডা থাকে, ডিহাইড্রেশন হয় না এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যেও কার্যকর।

তরমুজ

তরমুজের ৯২ শতাংশই পানি। তা ছাড়া এই ফলে ক্যালরিও খুব কম। যাঁরা ওজন কমাতে চান, তাঁরা খাবার তালিকায় তরমুজ রাখতে পারেন। তরমুজ উচ্চ লাইকোপেনসমৃদ্ধ; যা ক্যানসারের কোষের বিরুদ্ধে কাজ করে। এর আঁশ হজমে সহায়তা করে এবং ত্বক ও চুল সুন্দর রাখতে সহায়তা করে।

ডাবের পানি

গরমে আরেক স্বস্তিদায়ক পানীয় হল ডাবের পানি। এতে রয়েছে প্রাকৃতিক ইলেকট্রোলাইটস। সেই সঙ্গে এনার্জি বাড়াতেও সহায়তা করে এটি। তাই গরমে স্বস্তি পেতে নিয়মিত ডাবের পানি পান করুন।

দই

গরমকালে দইয়ের বিকল্প হয় না। সকাল শুরু হতে পারে দই-চিঁড়া বা দই দিয়ে ফলের স্মুদি খেয়ে। দুপুরে খাওয়ার পরে টক দই খাওয়া ভালো। আবার দই ভাতও খেতে পারেন। শরীর ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে দই। এছাড়া হজম শক্তি ও বৃদ্ধি করে গই। গ্রীক ইয়োগার্ট খেলে প্রোটিনও পাবেন অন্য পুষ্টির সঙ্গে।

 

Kabir Steel Re-Rolling Mills (KSRM)
Rocket New Cash Out
Rocket New Cash Out
bKash
Community Bank