সোমবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ || ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ || ১৩ শা'বান ১৪৪৫

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

স্কুলের খাবারে লবণ, চিনি কমানোর প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক

১৫:০৫, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

২৮১

স্কুলের খাবারে লবণ, চিনি কমানোর প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের

লবণ কমান, চিনি কমান, তবে আপনি চকলেট দুধ রাখতে পারেন। ইউএস এগ্রিকালচার ডিপার্টমেন্ট শুক্রবার খাবারের নতুন মান প্রস্তাব করেছে যার লক্ষ্য স্থূলতা মোকাবেলা করা এবং লক্ষ লক্ষ আমেরিকান শিশুকে আরও পুষ্টিকর স্কুল খাবার সরবরাহ করা। কৃষিমন্ত্রী টম ভিলসাক এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘অনেক শিশু তাদের প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাচ্ছে না এবং খাদ্য-সম্পর্কিত রোগ বাড়ছে।’ 

তিনি বলেন, ‘গবেষণায় দেখা যায়, স্কুলের খাবার হল বেশিরভাগ বাচ্চাদের জন্য একটি দিনের সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর খাবার। এটি প্রমাণ করে যে, বাচ্চাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি সুবিধা দিতে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ উপায়।’ 

ফেডারেল অর্থায়নে স্কুলের খাবারের প্রস্তাবিত পরিবর্তনগুলো ধীরে ধীরে সাপ্তাহিক সোডিয়ামের পরিমাণ কমিয়ে দেবে, সোডিয়াম উচ্চ রক্তচাপ বা হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

টক দই এবং প্রাতঃরাশের সিরিয়ালের মতো উচ্চ চিনির পণ্যগুলোকে লক্ষ্য করে তারা বলেন, চিনির পরিমাণও সীমিত করবে, চিনিতে স্থূলতা বা টাইপ-২ ডায়াবেটিস হতে পারে। 

ইউএস সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন জানায়, প্রায় ২০ শতাংশ  বা ১৪.৭ মিলিয়ন আমেরিকান শিশু এবং ২ থেকে ১৯ বছর বয়সী কিশোর-কিশোরীরা স্থূলতায় ভুগছে।

ছোট বাচ্চাদের কম চর্বিযুক্ত এবং চর্বিহীন দুধে আরও সুবিধা দেওয়া হবে। বড় বাচ্চাদের জন্য স্বাদযুক্ত দুধ, শর্করার মাত্রা সীমিতসহ’ অনুমতি দেওয়া হবে।
পূর্ণ শস্যের উপর বেশি জোর দেওয়া হবে, যা কার্ডিওভাসকুলার রোগ, স্ট্রোক এবং ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে পারে।

কৃষি বিভাগের মতে, বছরে প্রায় ৩০ মিলিয়ন শিশু জাতীয় স্কুল মধ্যাহ্ন ভোজন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে। যা সরকারি স্কুল এবং অলাভজনক বেসরকারি স্কুলগুলোতে কম খরচে বা বিনা খরচে খাবার সরবরাহ করে।  

বছরে প্রায় ১৫ মিলিয়ন স্কুল ব্রেকফাস্ট প্রোগ্রামে নথিভুক্ত হয়। প্রস্তাবিত পরিবর্তনগুলো ২০২৪ থেকে ২০২৫ স্কুল বছরের জন্য গৃহীত হওয়ার আগে ৬০ দিন অভিভাবকদের মতামতের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

Kabir Steel Re-Rolling Mills (KSRM)
Rocket New Cash Out
Rocket New Cash Out
bKash
Community Bank
স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত