বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ || ২৩ আষাঢ় ১৪২৯ || ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন

ইউনিভার্সিটি করেনপন্ডেন্ট, পাবিপ্রবি

২৩:১৫, ৫ জুন ২০২২

২৬৩

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার আজ রবিবার (৫ জুন) আনন্দঘন, উৎসবমুখর ও বর্ণিল  শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন করেছে। এ বছর ১৪তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

সকাল ৯ টায় আনন্দ শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রাণরসায়ন বিজ্ঞানী, জীনতত্ত্ববিদ, স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হাসিনা খান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান। অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন ফার্স্ট ক্যাপিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. হযরত আলী এবং  বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আনোয়ার খসরু পারভেজ।

প্রধান অতিথি অধ্যাপক ড. হাসিনা খান বলেন, জীবনে কোনো ভালো কাজ সংগ্রাম ছাড়া সম্ভব হয়না। মেয়েদের আরো বেশি প্রতিকূলতার মধ্যে সংগ্রাম করতে হয়। মেয়েদের বিজ্ঞান শিক্ষায় এগিয়ে আসার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন,  জীবনে ভালো কিছু পেতে হলে আমাদের নির্লোভ, সৎ, মিতব্যয়ী এবং সবাইকে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। জীবনে ক্ষতিকর বিষয়গুলোকে প্রতিহত করতে হবে। চলার পথে প্রতিটি ক্ষেত্রে নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলতে হবে। 

উপ উপাচার্য বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে শিক্ষা, গবেষণাসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। আমাদেরকে মানসম্মত শিক্ষার মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে হবে।

সাবেক কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আনোয়ার খসরু পারভেজ বলেন, শিক্ষার্থীদের আনন্দের সাথে জ্ঞান অর্জন করতে হবে। প্রচলিত শিক্ষার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সহশিক্ষামূলক কর্মকান্ডেও নিজেদের মনোযোগী করে তুলতে হবে। 

সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন বলেন, সবাইকে নিয়ে একসাথে আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে। প্রতিটি কাজের মধ্যে আমাদের একাগ্রতা ও প্রকৃত ইচ্ছা থাকতে হবে। যার যার অবস্থান থেকে বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে কাজ করা এবং সবার প্রতি সম্মান দেখাতে হবে। তিনি বলেন, সম্মান প্রদানেই সম্মান ফিরে পাওয়া যাবে। প্রতিটি জায়গা থেকে যার যে কাজ সেটা করতে হবে এবং কাজের স্বীকৃতি প্রদান করতে হবে। তিনি আরও বলেন আমাদের ছাত্রছাত্রীরা বিভিন্ন বিষয়ে অবদান রাখছে। তাঁদেরকে আমাদের বেশি বেশি অনুপ্রেরণা দিতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় পরিসর বাড়ানো এবং সেই সাথে ১০০ একরে উন্নীত করার বিষয়েও তিনি কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাণরসায়ন সম্পর্কিত বিষয় খোলারও আশ্বাস প্রদান করেন।

কবি বন্দে আলী মিয়া মুক্তমঞ্চ উদ্বোধন, জনক জ্যোতির্ময়, শহীদ মিনার ও স্বাধীনতা চত্বরে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ, জাতীয় সঙ্গীতের সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বৃক্ষরোপণ ও রক্তদান কর্মসূচি, শিক্ষার্থীদের নান্দনিক ফ্ল্যাশমব পরিবেশনা, ২০০৮ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে অবহিতকরণ, ৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য, ছাত্রছাত্রীদের খেলাধুলা পুরস্কার বিতরণ, বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের পরিবেশনা এবং ব্যান্ড দল 'জলের গান' এর পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন অনুষদের ডিন, হল প্রভোস্ট, প্রক্টর, ছাত্র উপদেষ্টা, বিভাগীয় চেয়ারম্যান, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। 
পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ২০০৮ সালের ৫ জুন প্রতিষ্ঠা লাভ করে। বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে ৫টি অনুষদের অধীনে ২১টি বিভাগে প্রায় ৫ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে।

Kabir Steel Re-Rolling Mills (KSRM)
Rocket New Cash Out
Rocket New Cash Out
BKash Payment
Bkash Payment
শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত