রোববার   ২৭ নভেম্বর ২০২২ || ১৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯ || ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

বদির চার ভাইসহ ১০১ ইয়াবা কারবারির কারাদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, কক্সবাজার

১৬:০৫, ২৩ নভেম্বর ২০২২

৫৯

বদির চার ভাইসহ ১০১ ইয়াবা কারবারির কারাদণ্ড

মাদক মামলায় কক্সবাজারের টেকনাফের ১০১ জন ইয়াবা কারবারিকে এক বছর ৬ মাস করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তাদের মধ্যে সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির চার ভাইও আছেন। এছাড়া তাদের ২০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ডও করা হয়েছে। তবে অস্ত্র মামলায় সবাইকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল বুধবার (২৩ নভেম্বর) এই রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণার আগে কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে ১৮ আসামিকে প্রিজন ভ্যানে আদালতে আনা হয়। মামলার বাকি ৮৩ জন আসামি পলাতক আছেন। বেলা সাড়ে ১২টায় রায় পড়া শুরু হয়। শেষ হয় দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে। এরপর রায় ঘোষণা করেন বিচারক।

পলাতক আসামিদের মধ্যে আছেন কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির চার ভাই আবদুল শুক্কুর, আবদুল আমিন ওরফে আমিনুল ইসলাম, মো. ফয়সাল ও শফিকুল ইসলাম, চাচাতো ভাই মো. আলম, খালাতো ভাই মং মং সিং, ফুপাতো ভাই কামরুল ইসলাম, ভাগনে সাহেদুর রহমান নিপুসহ অন্তত ১২ জন নিকটাত্মীয়।

মামলার আসামিরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারি ও পৃষ্ঠপোষক (গডফাদার)। ২০১৯ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি টেকনাফ পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আত্মসমর্পণের পর টানা দেড় বছর ১০১ জন আসামি কারাগারে বন্দি ছিলেন।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৯ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি টেকনাফ পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের হাতে সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা, ৩০টি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও ৭০ রাউন্ড তাজা কার্তুজ তুলে দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত টেকনাফের ১০২ জন ইয়াবা কারবারি। এ ঘটনায় ১০২ জনের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় মাদক ও অস্ত্র আইনে মামলা করেন থানার তৎকালীন পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) শরীফ ইবনে আলম। বিচারিক কার্যক্রম চলাকালে ২০১৯ সালের ৭ আগস্ট মো. রাসেল নামে একজন আসামি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

২০২০ সালের ২৬ নভেম্বর কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম তামান্না ফারাহর আদালত মারা যাওয়া ব্যক্তিকে বাদ দিয়ে অবশিষ্ট ১০১ জন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এবিএমএস দোহা। গত ২৭ ফেব্রুয়ারি জেলা ও দায়রা জজ আদালত মামলার অভিযোগ গঠন করেন। দীর্ঘ শুনানির পর আদালত আজ এই রায় ঘোষণা করেন।

 

Kabir Steel Re-Rolling Mills (KSRM)
Rocket New Cash Out
Rocket New Cash Out
BKash Savings
খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত