শুক্রবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ || ২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯ || ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে এশিয়া কাপ শুরু বাংলাদেশের

স্পোর্টস ডেস্ক

১২:২১, ১ অক্টোবর ২০২২

১৬৩

থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে এশিয়া কাপ শুরু বাংলাদেশের

ঘরের মাঠে ফেবারিটের তকমা নিয়ে জয় দিয়ে নারী এশিয়া কাপের যাত্রা শুরু করলো বাংলাদেশ। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে থাইল্যান্ড নারী দলের বিপক্ষে ৫০ বল হাতে রেখেই ৯ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে নিগার সুলতানা জ্যোতির বাংলাদেশ দল।

শনিবার (১ অক্টোবর) টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে রুমানা-নাহিদাদের বোলিং তোপে ৮২ রানের গুটিয়ে যায় থাইল্যান্ড নারী দল। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৫০ বল বাকি রেখেই মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে স্বল্প রানে পুঁজি নিয়ে থাইল্যান্ডের মেয়েদের সাথে বিপক্ষে বেশ লড়াই করতে হয়েছিল। সেই ম্যাচে থাই নারীদের ১১ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠা ছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করেছিল জ্যোতির নেতৃত্বাধীন দল।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ২৩ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচের ঠিক আটদিন পর আবারও থাইল্যান্ডের মুখোমুখি হলো বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। তবে দল একই হলেও জাগয়াটি ভিন্ন। সিলেটে ঘরের মাটিয়ে থাই মেয়েদের এবার পাত্তাই দিলো না জ্যোতি-সুলতানারা।
টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে চার ব্যাটার দুই অংকের ঘরে প্রবেশ করতে পারলেও বাকিরা ছিলেন যাওয়া-আসার মাঝে বাংলাদেশি বোলারদের দাপটে ২ বল বাকি থাকতে গুটিয়ে যাওয়ার আগে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় মাত্র ৮২ রান। যেখানে বিশ্বকাপ বাছািইপর্বে বাংলাদেশের ছুঁড়ে দেওয়া ১১৩ রানের বিপরীতে করেছিল ১০২ রান।

বাংলাদেশের পক্ষে বল হাতে ৩ উইকেট শিকার করেছেন রুমানা আহমেদ। এছাড়া ২টি করে উইকেট নেন তিনজন বোলার, তারা হলেন- নাহিদা আক্তার, সানজিদা আক্তার মেঘলা এবং সোহেলী আক্তার।

জয়ের জন্য ৮৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত খেলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার। মাত্র ১ রানের জন্য টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের তৃতীয় অর্ধশত স্পর্শ করতে না শামীমা সুলতানা সাজঘরে ফিরলে ৬৯ রানে উদ্বোধনী জুটি ভাঙে। ৩০ বলে ১০টি চারের মারে এ রান করে শামীমা।
জয় থেকে মাত্র ১৪ রান দূরে থাকতে উইকেট হারালে ওপেনার ফারজানা হকের সঙ্গী হন অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। এর থাইল্যান্ডের বোলারদের অনায়াসে খেলে ৫০ বল বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশের মেয়েরা। ব্যাট হাতে ফারজানা ২৬ এবং জ্যোতি ১০ রানে অপরাজিত ছিলেন।

ব্যাট হাতে ৪৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে এবং ফিল্ডিংয়ে দুটি ক্যাচ নিয়ে দলের জয়ের অবদান রাখায় ম্যাচ সেরা হয়েছেন বাংলাদেশের শামীমা সুলতানা।

 

Kabir Steel Re-Rolling Mills (KSRM)
Rocket New Cash Out
Rocket New Cash Out
BKash My Offer