?>

মঙ্গলবার   ১১ মে ২০২১ || বৈশাখ ২৮ ১৪২৮ || ২৮ রমজান ১৪৪২

অপরাজেয় বাংলা :: Aparajeo Bangla

এবার আটক হেফাজতের কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব রাজী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

২২:০৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১

আপডেট: ২২:০৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১

১৮৮

এবার আটক হেফাজতের কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব রাজী

হেফাজতের কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব মুফতি শাখাওয়াত হোসাইন রাজীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ
হেফাজতের কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব মুফতি শাখাওয়াত হোসাইন রাজীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ

হেফাজতে ইসলামের সাম্প্রতিক তাণ্ডবে সম্পৃক্ততার অভিযোগে এবার সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব মুফতি শাখাওয়াত হোসাইন রাজীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। বুধবার (১৪ এপ্রিল) বিকেল ৫ টার দিকে রাজধানীর লালবাগ এলাকা থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশের লালবাগ গোয়েন্দা বিভাগ তাকে আটক করে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সম্প্রতি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের বিরোধিতা করে রাজধানীতে সহিংস ঘটনায় পল্টন ও মতিঝিল থানায় হওয়া একাধিক মামলার এজাহারভুক্ত আসামি তিনি।

ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে রাজীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। গোয়েন্দা পুলিশ বলছে,হেফাজতের সাম্প্রতিক তাণ্ডবের ঘটনায় রাজীর সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ

গত ২৬ মার্চ থেকে ঢাকায় বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে সরকার সমর্থকদের সঙ্গে সংঘর্ষের পর চট্টগ্রামের হাটহাজারী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব চালায় হেফাজত কর্মীরা। গুলিতে নিহত হয় চার জন। দুই দিন পর ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছাড়াও নারায়ণগঞ্জ,মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান, হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ,কিশোরগঞ্জে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলা চালানো হয়।

৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের রয়্যাল রিসোর্টে নারী নিয়ে মামুনুল হক অবরুদ্ধ হওয়ার পর হেফাজত কর্মীরা ওই এলাকা ছাড়াও মুন্সিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জে তাণ্ডব চালায়। ওই ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ও সরকারি দল আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতারা হেফাজতকে সতর্ক করে বক্তব্য রাখতে থাকেন।

কেবল সাম্প্রতিক ঘটনা নয়, ২০১৩ সালের ৫ মে শাপলা চত্বরে তাণ্ডবের ঘটনায় করা মামলাগুলোর তদন্ত স্থবির হলেও সেগুলো আবার চালু হচ্ছে। এর মধ্যে ৫ মের মামলায় রবিবার রাতে পুলিশ চট্টগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয় হেফাজতের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদীকে। সোমবার তাকে সাত দিনের রিমান্ডেও পেয়েছে পুলিশ।

এক দিন পরেই গ্রেপ্তার হন সহপ্রচার সম্পাদক মুফতি শরিফউল্লাহ্। তাকেও শাপলা চত্বরে তাণ্ডবের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

সেই সহিংসতার ঘটনায় হেফাজতের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে শুধু ঢাকাতেই মামলা হয়েছিল ৫৩টি। হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের আসামি করা হয় সেসব মামলায়। চারটি মামলার চার্জশিট আদালতে জমা দেয়া হয়েছে। আরও দুটি মামলার তদন্ত শেষে চূড়ান্ত প্রতিবেদন তৈরির অপেক্ষায় আছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

এ ছাড়া অন্য ৪৭টি মামলার তদন্ত একেবারেই স্থবির। ঘটনার পরপরই গ্রেপ্তার হলেও আট বছর ধরে জামিনে আছেন হেফাজতের এখনকার আমির জুনাইদ বাবুনগরী।


 

DBBL Nexas Card
TELETALK
খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত